শুক্রবার || ৬ ডিসেম্বর ২০১৯ || ৯:০৯:১৫ অপরাহ্ন

poultrynews

পোল্ট্রি শিল্পের উন্নয়নে সরকারের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা দেয়া হবে

প্রকাশ: শুক্রবার || মে ১৭ ২০১৯ || ১১:২০:২১ AM

Share on Facebook   Share on Twitter   Leave Your Comment  Share via Email  Google Plus 

পোল্ট্রি সেক্টরের নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা সভায় কৃষিমন্ত্রী-

গত ২ এপ্রিল ২০১৯ মঙ্গলবার, কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক এমপি’র সাথে তার সচিবালয়ের কার্যালয়ে পোল্ট্রি সেক্টরের নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ পোল্ট্রি ইন্ডাস্ট্রিজ সেন্ট্রাল কাউন্সিল-এর সভাপতি মসিউর রহমান। অন্যান্য ১০ সদস্যের প্রতিনিধির মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ওয়ার্ল্ড পোল্ট্রি সায়েন্স এসোসিয়েশন-বাংলাদেশ শাখা’র সভাপতি শামসুল আরফিন খালেদ, ওয়ার্ল্ড পোল্ট্রি সায়েন্স এসোসিয়েশন-বাংলাদেশ শাখা’র সেক্রেটারি কৃষিবিদ মোঃ মাহবুব হাসান, ব্রিডার্স এসোসিয়েশন-এর জেনারেল সেক্রেটারি মোঃ আসিফুর রহমান, ফিড ইন্ডাস্ট্রিজ এসোসিয়েশন বাংলাদেশ-এর সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ মোঃ আহসানুজ্জামান প্রমুখ। বাংলাদেশের কৃষি অর্থনীতির একটি গুরুত্বপূর্ণ খাত পোল্ট্রি শিল্প, সম্ভাবনাময় এই অর্থনৈতিক খাতকে আরো বিকশিত করতে আলোচনা সভার মাধ্যমে কৃষিমন্ত্রীর নিকট পোল্ট্রি সেক্টরের নেতৃবৃন্দগণ এই শিল্পের জন্য কিছু দাবি উত্থাপন করেন।
কৃষি মন্ত্রী বলেন,“ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে মেধাবী হিসেবে গড়ে তুলতে এবং জনগণের পুষ্টি চাহিদা পূরণে পোল্ট্রি শিল্পের অবদান অপরিসীম। প্রায় এক কোটি জনশক্তির প্রায় ৪০ শতাংশ হলো নারী। কর্মসংস্থান সৃষ্টির পাশাপাশি  নিরাপদ মুরগি ও ডিম উৎপাদনের মাধ্যমে দেশের পুষ্টি চাহিদা পূরণের পাশাপাশি বিদেশে রফতানি বাড়াতে হবে। এজন্য সরকারের পক্ষ থেকে এ শিল্পের উন্নয়নে সর্বাত্মক সহযোগিতা দেয়া হবে।”
কিছুদিন আগের খবর ছিল ট্যানারির বর্জ্য থেকে পোল্ট্রি শিল্পের খাবার তৈরী করা হয়। কিন্তু তা এখন ভিত্তিহীন খবর। দেশে ট্যানারি শিল্পে উৎপাদিত বর্জ্য পোল্ট্রি শিল্পের মোট খাদ্য চাহিদার দেড় শতাংশ। নেতৃবৃন্দরা বলেন, ট্যানারি শিল্পের বর্জ্য থেকে কখনোই খাদ্য তৈরী করা হয়নি। বাংলাদেশে পোল্ট্রি ফিডের বার্ষিক উৎপাদন প্রায় ২৭ লাখ মেট্রিক টন। এর মধ্যে বাণিজ্যিক ফিড মিলে উৎপাদিত হচ্ছে প্রায় ২৫ দশমিক ৫০ লাখ মেট্রিক টন এবং লোকাল উৎপাদন প্রায় ১ দশমিক ৫০ লাখ মেট্রিক টন। বর্তমান বাজারে মুরগির মাংস ও ডিম সবচেয়ে নিরাপদ খাবার। উক্ত আলোচনা অনুষ্ঠানে কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক এমপি পোল্ট্রি সেক্টরের নেতৃবৃন্দদের সকল দাবি মনোযোগ সহকারে শুনেন এবং তাদের সাথে একমত প্রকাশ করেন এবং এই শিল্পের বিকাশে সরকারের যা যা করনীয় সব করবেন বলে জানান।

Share on Facebook   Share on Twitter   Leave Your Comment  Share via Email  Google Plus 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ


61, Joarsahara (1st floor), Dhaka-1000
Copyright © 2017 monthly Poultry Khamar Bichitra. All Right Reserved.